Warranty Terms

  • X-WAY IT Solution থেকে পণ্য কেনার আগে ক্রেতাকে অবশ্যই নিচের ওয়ারেন্টি নিয়মাবলী পড়ে নিতে হবে । কারণ কেনার সাথে সাথে ধরে নেয়া হবে এই নিয়মাবলীর শর্ত সমুহ ক্রেতা মেনে নিচ্ছেন এবং নিয়মগুলি কার্যকর হয়ে যাবে।

 

  • বিক্রিত পণ্যের ওয়ারেন্টির দায়িত্ব নির্মাতা তথা মূল ব্র্যান্ড কম্পানি বহন করে থাকে। বিক্রয়কারী প্রতিষ্ঠান সেই মুল নির্মাতা কম্পানির নির্ধারিত শর্ত অনুযায়ী তার প্রতিনিধি হয়ে ক্রেতাকে সহযোগিতা করে থাকে।

 

  • কম্পিউটার ও অন্যান্য যন্ত্রাংশ যেগুলো ওয়ারেন্টির আওতাভুক্ত হিসাবে উল্লেখ আছে শুধুমাত্র সেগুলোই ওয়ারেন্টি সেবার আওতাভুক্ত হবে।

 

  • ওয়ারেন্টির আওতাভুক্ত কোন পণ্য বিক্রির পর যদি তাতে ত্রুটি ধরা পড়ে, তবে মেরামতের মাধ্যমে সেই ত্রুটি সারিয়ে দেয়া হয়।

 

  • কোন কারণে পণ্যটি মেরামত করার অযোগ্য হলে একই পণ্য দিয়ে বদলে দেয়া হতে পারে কিংবা কম্পানির কাছে আছে এমন অন্য কোন ব্র্যান্ডের সমমানের জিনিস দিয়ে বদলে দেয়া হতে পারে।

 

  • একই কিংবা সমমানের পণ্য যদি কোম্পানির কাছে না থাকে, তবে তার চেয়েও উচ্চতর কোন পণ্য দেয়া যেতে পারে। সে ক্ষেত্রে উভয় পণ্যের বর্তমান বাজার দরের যে পার্থক্য, তা ক্রেতাকে পরিশোধ করতে হবে। ক্রেতা এই শর্ত গ্রহণ না করে দাম ফেরত নিতে পারেন। এ ক্ষেত্রে ওয়ারেন্টির পুরো মেয়াদের যে সময় ইতোমধ্যে অতিবাহিত হয়ে গেছে, তা আনুপাতিক হারে মূল দাম থেকে বাদ দিয়ে বাকি অংশ পরিশোধ করা হবে।

 

  • ক্রেতা যখন পণ্যটি ব্যবহার করবেন তখন কিংবা মেরামতের সময় যদি কোন সফটওয়্যার বা ডাটা নষ্ট হয় কিংবা হারিয়ে যায় তার জন্য কম্পানি কোন দায়িত্ব নিবে না। এমনকি কোন সফটওয়্যার কিংবা ডাটা ওয়ারেন্টির আওতায় পড়বে না।

 

  • অসতর্ক ব্যাবহার, পানিতে ভিজে যাওয়া, উপর থেকে পরে যাওয়া, পুড়ে যাওয়া, আঘাতপ্রাপ্ত হওয়া প্রভৃতি কারণে কোন ত্রুটি দেখা দিলে তা ওয়ারেন্টির আওতায় থাকবে না।

 

  • ওয়ারেন্টির আওতায় নেয়া কোন মেরামতের কাজ কতদিনে মাঝে সমাধান করে ফেরত দেয়া যাবে তা নিশ্চিত করে উল্লেখ করা যায় না। কারণ কোন কোন ক্ষেত্রে মেরামতের জন্য যে যন্ত্রাংশের প্রয়োজন তা বিশেষ ভাবে আমদানী করে আনতে হয় যা সঙ্গত কারনেই অতিরিক্ত সময় নিয়ে থাকে, তাই দিনক্ষণ নিশ্চিত করে বলে দেয়া যায় না। তবে তা ৪৫ দিন পর্যন্ত সময় লেগে যেতে পারে।

 

  • বিক্রির সময় যে কম্পিউটার সেটআপ ও অপারেটিং সিস্টেম কাস্টমাইজেশন করে দেয়া হয় তা ওয়ারেন্টির আওতায় থাকে না।

 

  • ল্যাপটপ অথবা ডেস্কটপ ডেলিভারির সময় আমরা কোন প্রকারের পাসওয়ার্ড কিংবা সিকিউরিটি কোড প্রয়োগ করি না। কেউ যদি ল্যাপটপ কিংবা ডেস্কটপ কেনার পর Bios পাসওয়ার্ড দিয়ে থাকেন এবং তা ভুলে যান, তবে তা ওয়ারেন্টির অন্তর্ভূক্ত হবে না। এর সম্পূর্ণ দায় দায়িত্ব ব্যবহারকারীকে বহন করতে হবে।

 

  • যে কোন সার্ভিস কাজের জন্য কম্পানি মূল্য চার্জ করতে পারবে যদি কাজটি ওয়ারেন্টির আওতাধীন না হয়ে থাকে।